Home > বিনোদন > রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও বিরোধীদলীয় নেতার অভিনন্দন

এ ঘটনায় ওই কিশোরীর পরিবারের পক্ষ থেকে মঙ্গলবার (১৪ মে) রাতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ছাগলনাইয়া থানায় এ মামলা দায়ের করা হয়। মামলায় জামশেদ আলম নিশান (১৮) নামে এক যুবককে আসামি করা হয়েছে। জামশেদ ছাগলনাইয়া উপজেলার শুভপুর ইউনিয়নের উত্তর বল্লভপুর গ্রামের মাক্কু মিয়ার ছেলে। অন্যদিকে, বুধবার (১৫ মে) দুপুরে ফেনীর জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম তানিয়া ইসলামের আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে ওই কিশোরী।

পুলিশ জানায়, প্রতিবেশী হওয়ায় সুবাধে জামশেদের সঙ্গে ওই কিশোরীর আলাপ পরিচয় ছিলো। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে ঘনিষ্ট সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই কিশোরীকে একাধিকবার ধর্ষণ করে জামশেদ। পরে ওই কিশোরী বিয়ের জন্য চাপ দিলে জামশেদ অস্বীকৃতি জানায়। বিষয়টি ওই কিশোরী তার পরিবারকে জানায়। এরপর বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে মঙ্গলবার বিকেলে এ নিয়ে এলাকায় সালিশ বৈঠক হয়। বৈঠকে জামশেদ ও তার পরিবার অভিযোগ অস্বীকার করেন। পরে রাতেই ওই কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। এরপর থেকে আসামি জামশেদ পলাতক রয়েছেন।

ছাগলনাইয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমএম মোর্শেদ বাংলানিউজকে জানান, বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এছাড়া ২২ ধারায় আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন ওই কিশোরী।জামশেদকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।

শেয়ার করুন :

ছাগলনাইয়ায় বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ, মামলা

প্রকাশের সময়ঃ ৬:১৭ বিকাল

প্রকাশের তারিখঃ মে ১৫, ২০১৯

এ ঘটনায় ওই কিশোরীর পরিবারের পক্ষ থেকে মঙ্গলবার (১৪ মে) রাতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ছাগলনাইয়া থানায় এ মামলা দায়ের করা হয়। মামলায় জামশেদ আলম নিশান (১৮) নামে এক যুবককে আসামি করা হয়েছে। জামশেদ ছাগলনাইয়া উপজেলার শুভপুর ইউনিয়নের উত্তর বল্লভপুর গ্রামের মাক্কু মিয়ার ছেলে। অন্যদিকে, বুধবার (১৫ মে) দুপুরে ফেনীর জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম তানিয়া ইসলামের আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে ওই কিশোরী।

পুলিশ জানায়, প্রতিবেশী হওয়ায় সুবাধে জামশেদের সঙ্গে ওই কিশোরীর আলাপ পরিচয় ছিলো। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে ঘনিষ্ট সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই কিশোরীকে একাধিকবার ধর্ষণ করে জামশেদ। পরে ওই কিশোরী বিয়ের জন্য চাপ দিলে জামশেদ অস্বীকৃতি জানায়। বিষয়টি ওই কিশোরী তার পরিবারকে জানায়। এরপর বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে মঙ্গলবার বিকেলে এ নিয়ে এলাকায় সালিশ বৈঠক হয়। বৈঠকে জামশেদ ও তার পরিবার অভিযোগ অস্বীকার করেন। পরে রাতেই ওই কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। এরপর থেকে আসামি জামশেদ পলাতক রয়েছেন।

ছাগলনাইয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমএম মোর্শেদ বাংলানিউজকে জানান, বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এছাড়া ২২ ধারায় আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন ওই কিশোরী।জামশেদকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।