আমি শহীদ জিয়ার আদর্শের কর্মী হিসেবে মৃতে্যুর আগ পর্যন্ত দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে কাজ করে যাব – মোহাম্মদ আজম

চট্টগ্রাম

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল চান্দগাঁও থানা শাখার সভাপতি কাউন্সিলর মোহাম্মদ আজম বলেন, আমি শহীদ জিয়ার আদর্শে গড়া দল বিএনপি’র একজন কর্মী হিসেবে ১৯৮৮ সালের পর থেকে স্বৈরাচার এরশাদ বিরোধী ও স্বৈরাচার হাসিনা বিরোধী আন্দোলনে সরাসরি প্রতিটা মিছিল মিটিং-এ রাজপথে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছিলাম। বর্তমানেও রাজপথে সক্রিয়ভাবে জড়িত রয়েছি। দলের নীতিনির্ধারণী মহলের নির্দেশে ২০০০ সালে মোহরা ওয়ার্ড যুবদলের সভাপতি, ১৯৯৭ সালে মহানগর যুবদলের সাহিত্য সম্পাদক, ১৯৯৬ সালে মহানগর বিএনপি’র সহ প্রচার সম্পাদক, ২০১৭ সালে চান্দগাঁও থানা বিএনপি’র সভাপতি নির্বাচিত হই। এছাড়া ১৯৯১, ১৯৯৬, ২০০১, ২০০৮ সালে জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও চট্টগ্রাম মেয়র নির্বাচনে বিএনপি’র মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করি। আমি এবং আমার পরিবারের সকল সদস্য বিএনপি’র রাজনৈতিক আদর্শে আদর্শিত। গত ৮ ফেব্র“য়ারি দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া কারারুদ্ধ হওয়ার পর থেকে অদ্যাবদি প্রশাসনের রক্ত চক্ষুকে উপেক্ষা করে প্রতিটি মিছিল মিটিং-এ আন্দোলন সংগ্রামে সক্রিয় রয়েছি। ১৫ মার্চ কেন্দ্রীয় ঘোষিত চট্টগ্রাম মহানগর-উত্তর-দক্ষিণ জেলা কর্তৃক আয়োজিত মহাসমাবেশে বিশাল মিছিল সহকারে আমি অংশগ্রহণ করি। আমি সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমার রাজনীতির গুরু জননেতা এম. মোরশেদ খানের নেতৃত্বে আজীবন রাজনীতি করে যাব। এব্যাপারে সন্দেহের কোন অবকাশ নাই। তিনি আরো বলেন, একটি মহল আমার জনপ্রিয়তায় ইর্শান্বিত হয়ে আমাকে আমার দলের কাছে এবং সমাজের নিকট মিথ্যা, বানোয়াট তথ্য-উপাত্য দিয়ে হেয় প্রতিপন্ন করার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। ইহা থেকে আমার দলের সকল পর্যায়ের নেতকর্মীকে সতর্ক থাকার জন্য আমি বিনীতভাবে অনুরোধ করছি। তিনি আরো বলেন, ২০১০ সালের পর থেকে ৫নং মোহরা ওয়ার্ডের সর্বস্তরের জনসাধারণের ভোটে দুই দুইবার কাউন্সিলর নির্বাচিত হই। সুতরাং আমাকে নিয়ে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য আমি এলাকাবাসীর প্রতি বিনীতভাবে অনুরোধ করছি। জনাব মোহাম্মদ আজম বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জননেতা তারেক রহমান নির্দেশে দলের যুগ্ম মহাসচিব এডভোকেট রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত পত্র স্থাগিত আদেশ প্রত্যাহার করে নেওয়ার পর পুনরায় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র চান্দগাঁও থানা শাখার সভাপতি ও প্রাথমিক সদস্য পদ ফিরিয়ে দেওয়ায় দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জননেতা তারেক রহমান ও ভাইস চেয়ারম্যান সাবেক পররাষ্টমন্ত্রী এম. মোরশেদ খানের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানায়। তিনি আজ ২৯ মার্চ বিকেল ৫টায় ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম নিজ বাড়িতে এসে পৌঁছিলে দলের পক্ষ থেকে এক উৎসব মুখর স্বস্পূর্ত সমাবেশে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। চান্দগাঁও থানা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক শরিফ উদ্দিন খানের পরিচালনায় চান্দগাঁও থানা বিএনপি’র সিনিয়র সহ-সভাপতি আলহাজ্ব আবদুল খালেক মেম্বারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, কালুরঘাট শ্রমিক দলের সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সদস্য মোহাম্মদ ইদ্রিচ, চান্দগাঁও ওয়ার্ড বিএনপি’র সভাপতি মোহাম্মদ ইলিয়াছ, সাধারণ সম্পাদক মাসুদুল কবির রানা, পূর্বষোলশহর ওয়ার্ড বিএনপি’র সভাপতি কাউন্সিলর দোস্ত মোহাম্মদ, নগর বিএনপি’র সদস্য মোহাম্মদ ইয়াছিন চৌধুরী, তসলিম উদ্দিন, মোহরা ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ফিরোজ খান, যুবদল চান্দগাঁও থানার আহবায়ক জাফর আহমদ, নগর ছাত্রদলের প্রাক্তন ছাত্রনেতা এস.এম. মোশারফ উদ্দিন, বিএনপি নেতা মোহাম্মদ জসিম উদ্দিনসহ বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদল, শ্রমিকদল, মহিলাদল, স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *