জিয়া পরিবারের নাম মুছে ফেলা যাবে না : ঢাবি সাদাদল

রাজনীতি

জিয়া পরিবারের উপর নিপীড়ন, নির্যাতন ও ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে আজ মঙ্গলবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার সামনে মানববন্ধন করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) বিএনপিপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন সাদা দল। দেশে একটি সুষ্ঠু ও অবাধ নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবিতে অবিলম্বে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি এবং তারেক রহমান সহ সব নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করার দাবি জানান সাদা দলের শিক্ষকেরা।

সভাপতির বক্তব্যে ড. এবিএম ওবায়দুল ইসলাম বলেন, দেশ আজ গভীর সঙ্কটে নিপতিত। দেশে চলছে দমন-পীড়নের রাজনীতি। গণতন্ত্র ধ্বংস করা হয়েছে। দেশের তিনবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া মিথ্যা মামলায় কারাগারে বন্দি। একুশে আগস্ট গ্রেনেড মামলা তারেক রহমানে জড়ানো হয়েছে কেবল জিয়া পরিবারকে নির্বাচন ও রাজনীতি থেকে দূরে রাখার জন্য। আমরা খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানাই।

কলা অনুষদের সাবেক ডিন ড.সদরুল আমিন বলেন, সম্পূর্ণ মিথ্যা মামলায় খালেদা জিয়াকে সাজা দিয়ে কারাবন্দী করেছে। আমি তার অবিলম্বে মুক্তির দাবি জানাই। এমনি পরিস্থিতিতে একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় তারেক রহমানকে জড়ানো হয়েছে রাজনৈতিক উদ্দেশে। শুরু হয়েছে ভুয়া ও মিথ্যা মামলা। আমরা এসব বন্ধ করে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবি জানাই।

দা দলের প্রচার সচিব অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ছিদ্দিকুর রহমান খান বলেন, মিথ্যা মামলায় বেগম খালেদা জিয়াকে সাজা দিয়ে কারাবন্দী করা হয়েছে। তাকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়ার ষড়যন্ত্র হচ্ছে। অথচ বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধেও ১৫ টি মামলা হয়েছিল। কিন্তু সেগুলো তিনি ক্ষমতায় আসার পর আজ অকার্যকর। এমনি অবস্থায় জিয়া পরিবারের জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে একুশে আগস্ট গ্রেনেড মামলায় জড়ানো হয়েছে। আমি এসবের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

যুগ্ম আহ্বায়ক ড. অধ্যাপক লুৎফর রহমান বলেন, দেশ ও জাতি বিনির্মাণে জিয়া পরিবারের নাম মুছে ফেলা যাবেনা। নির্যাতন নিপীড়ন করে কোনো লাভ হবেনা। জিয়া পরিবারের ঐতিহাসিক অবদান ইতিহাসে ঠাঁই করে নিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *