এনসিএলে সেঞ্চুরি করেই চলছেন মিজানুর

ক্রিকেট

ঘরোয়া ক্রিকেটে সেঞ্চুরি করাটাকে একপ্রকার অভ্যাসেই পরিণত করে ফেলেছেন রাজশাহী ডানহাতি ওপেনার মিজানুর রহমান। ডিপিএল, এনসিএল বা বিসিএল – সবখানেই ছোটাচ্ছেন রানের ফোয়ারা। সে ধারাবাহিকতা বজায় রাখলেন চলতি এনসিএলেও।

চলতি জাতীয় লিগের প্রথম রাউন্ডে খুলনার বিপক্ষে খেলেছিলেন ১১৫ রানের ইনিংস। যার ফলে তার ব্যাটিং দেখতে পরের রাউন্ডে রাজশাহীর শহীদ কামরুজ্জামান স্টেডিয়ামে উপস্থিত হন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু। প্রধান নির্বাচককে হতাশ করেননি ২৭ বছর বয়সী মিজান।

প্রথম রাউন্ডে করা ১১৫ রানের ইনিংসকে পার করে খেলেছেন দেড়শ রানের ইনিংস। সম্ভাবনা ছিলো ক্যারিয়ারের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি করার। তবে রংপুর বিভাগের পেস বোলিং অলরাউন্ডার আরিফুল হকের বোলিংয়ে উইকেটের পেছেন লিটন দাসের হাতে ক্যাচ দিয়ে ব্যক্তিগত ১৬৫ রানের মাথায় সাজঘরে ফেরেন মিজান।

উদ্বোধনী জুটিতে নাজমুল হোসেন শান্তকে নিয়ে গড়েছেন ৩১১ রানের জুটি। এখানেও সুযোগ ছিলো প্রথম রাউন্ডে রনি তালুকদার-আব্দুল মজিদের গড়া ৩৫০ রানের উদ্বোধনী জুটির রেকর্ড ভেঙে দেয়ার। সেটি হয়নি মিজান সাজঘরে ফেরায়।

তবে প্রায় ৬ ঘণ্টার ইনিংসে মাত্র ২১৬ বলে ১৬৫ রানের ইনিংস খেলে মাঠে উপস্থিত প্রধান নির্বাচককে সন্তুষ্ট করেছেন নিশ্চিত। প্রথম ইনিংসে রংপুরের করা ১৫১ রানের জবাবে লিডের পাহাড় দাঁড় করাচ্ছে রাজশাহী।

মিজানের প্রথম শ্রেণির ক্যারিয়ারের ১১তম এবং নাজমুল শান্তর ৬ষ্ঠ সেঞ্চুরিতে এরই মধ্যে ১৯৫ হয়েছে তাদের লিড। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত রাজশাহীর সংগ্রহ ১ উইকেটে ৩৪৬ রান। অপরাজিত থাকা ওপেনার নাজমুল শান্ত ব্যাট করছেন ১৬০ রান নিয়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *