১৫ লাখ ৯৩ হাজার প্রতিবন্ধী শনাক্ত

জাতীয়

এ পর্যন্ত দেশব্যাপী ১৫ লাখ ৯৩ হাজার ৭০ জন প্রতিবন্ধী শনাক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে ঘূর্ণিঝড় প্রবণ ১৯ জেলায় ৪ লাখ ৩৩ হাজার প্রতিবন্ধীকে নিবন্ধন করা হয়েছে। এ কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

রোববার প্রতিবন্ধিতা বান্ধব দুর্যোগ ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা বিষয়ক জাতীয় টাস্কফোর্সের তৃতীয় সভায় এ তথ্য জানানো হয়। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার সভাপতিত্বে সভায় অ্যাডভোকেসি গ্রুপ অন ডিজঅ্যাবিলিটি ইনক্লুসিভ ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্টের ফোকাল পয়েন্ট সায়মা হোসেনসহ (পুতুল) বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সদস্যরা সভায় উপস্থিত ছিলেন।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। সভায় আরো জানানো হয়, প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের লিঙ্গ, বয়স, পেশা ও শ্রেণিভিত্তিক উপাত্ত সংগ্রহের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এ পর্যন্ত ১৯ হাজার রোহিঙ্গা নারী ও শিশুকে মনোসামাজিক কাউন্সিলিং করা হয়েছে।

প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের বিভিন্ন পর্যায়ে প্রশিক্ষণ দিতে প্রশিক্ষকের সংখ্যা ও প্রশিক্ষণের পরিধি বাড়ানোর ওপর সায়মা হোসেন গুরুত্বারোপ করেন। এ সময় সভায় জানানো হয়, এ পর্যন্ত ৩ হাজার ১০৫ জন কর্মকর্তা ও শিক্ষককে প্রশিক্ষক হিসেবে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। তারা প্রান্তিক পর্যায়ে প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকবেন।

সভায় মে মাসে অনুষ্ঠিত প্রতিবন্ধিতা ও দুর্যোগ ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা বিষয়ক দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক সম্মেলন নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। সভায় জানানো হয়, ২০১৮ সালের জুলাই মাসে মঙ্গোলিয়ার রাজধানী উলান বাটোরে অনুষ্ঠিত এশিয়ান মিনিস্টিরিয়াল কনফারেন্স অন ডিজাস্টার রিস্ক রিডাকশন-এ ঢাকা ঘোষণা ভূয়ষী প্রশংসা পেয়েছে। আলোচনায় ঢাকা ঘোষণা ও এর বাস্তবায়ন কৌশলের কথা উঠে আসে।

আরও জানানো হয়, ঢাকায় ঘোষণার আলোকে নির্দিষ্ট কর্মপন্থা নিয়ে কাজ করছে মন্ত্রণালয়। বিশেষত বছর ভিত্তিক টার্গেট নিয়ে বিভিন্ন দেশের সঙ্গে মতবিনিময় করা হচ্ছে। ঢাকায় ঘোষণায় ২০২১ সালের মধ্যে ২০টি দেশকে প্রতিবন্ধী জেন্ডার ও বয়স সংবেদনশীল প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করার কথা বলা হয়েছে। একই সময়ের মধ্যে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের সিদ্ধান্ত গ্রহণে নেতৃত্ব দেয়ার সক্ষমতা অর্জনের সুযোগ সৃষ্টির কথা বলা হয়েছে।

গ্লোবাল ফ্লাটফর্ম অব ডিজাস্টার রিস্ক রিডাকশন-এর ষষ্ঠ সম্মেলনে ঢাকা ঘোষণা বিশদভাবে তুলে ধরা হবে বলে সভায় সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *