‘নিজের বলার মতো একটা গল্প’

তথ্য ও প্রযুক্তি

শেষ হলো প্রজেক্ট ‘নিজের বলার মতোএকটা গল্পের’ প্রথম ভাগ। শুক্রবার বিকালে বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র মিলনায়তনে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা তরুণ, তরুণীর হাতে সার্টিফিকেট প্রদানের মাধ্যমে সমাপ্ত ঘোষণা হলো প্রথম ভাগের।

জানুয়ারি ১, ২০১৮ থেকে এর যাত্রা শুরু হয়। এই উদ্যোগের মূল দায়িত্ব পালন করেন এর প্রতিষ্ঠাতা ইকবাল বাহার। সম্পূর্ণ বিনা খরচে, অনলাইনে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা উদ্যোমী তরুণ, তরুণীরা এর সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। টানা ৯০ দিন অনলাইনে বিভিন্ন কার্যক্রমের মাধ্যমে তারা নিজেদের অবস্থানে থেকে উদ্যোক্তা হয়ে প্রতিষ্ঠিত করতে নানা প্রচেষ্টা চালায়।

অনুষ্ঠানে প্রজেক্টের প্রধান ইকবাল বাহার জানান, তিনটি কারণে এ প্রজেক্টটি সবার থেকে ভিন্ন।

১. সারা বাংলাদেশ অর্থাৎ ৬৪ জেলা থেকে ১৬৪ জনের অংশগ্রহণ, মফস্বলকে প্রাধান্য দেয়া হয়েছে।

২. টানা ৯০ দিনের অনলাইনে অংশগ্রহণমূলক কর্মশালা (প্রতি শুক্র ও শনিবারসহ)

৩. এই পুরো কার্যক্রমটি হয়েছে বিনামূল্যে। শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে কোনো ফি নেয়া হয়নি।

এই ৯০ দিনে নতুন উদ্যোক্তারা তাদের কার্যক্রম কীভাবে পরিচালনা করবে, ব্যবসা পরিচালন, পরিবেশন ও প্রকাশ, সেই সাথে নিজেকে উদ্যোক্তা হয়ে উঠার প্রতিটি পদক্ষেপে কীভাবে বাধা পেরুবে তার প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে।

অনুষ্ঠানের শুরু থেকে শিক্ষার্থীদের নানা ধরনের প্রেরণামূলক ও সামনে এগিয়ে যাবার দিক নির্দেশনামূলক বক্তব্য দেন ফোর্বস ম্যাগাজিনের শীর্ষ ৩০ সামাজিক উদ্যোক্তা হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়া আয়মান সাদিক। সাথে ছিলেন আমরা নেটওয়ার্কস লিমিটেডের কমিউনিকেশন্স বিভাগের প্রধান সুলাইমান সুখন, আমরাই বাংলাদেশের সহ-প্রতিষ্ঠাতা আরিফ আর হোসেন, ডন সামদানির প্রধান গোলামসামদানি।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিজিএমই এর সাবেক সভাপতি আতিকুল ইসলাম। নতুন উদ্যোক্তাদের উদ্দেশে এই ব্যবসায়ী নেতা জানান, তার নিজের এগিয়ে চলার গল্প। সেই সাথে সকলকে বাধা পেরিয়ে সাহস নিয়ে সামনে এগিয়ে চলার আহ্বান জানান।

উদ্যোক্তাদের সহায়তায় সরকারের নানা পদক্ষেপের কথা তুলে ধরে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, সরকারের তরফ থেকে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা নতুন উদ্যোক্তাদের একসাথে এক ছাতার নিচে আনতে কার্যক্রম আরো বেগবান করা হবে। এ সময় প্রজেক্ট নিজের বলার মতো গল্পের সাফল্য কামনার পাশাপাশি সহায়তারও আশ্বাস দেন তিনি।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও আইসিটি মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে সরকারের নানা পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেন। সেই সাথে অনলাইন প্লাটফর্মে এই প্রজেক্টের নানা সুবিধা কথা নিয়ে প্রশংসা করেন তিনি। অনুষ্ঠানে পুরো প্রজেক্টের শীর্ষ তিন উদ্যোক্তাকে পুরস্কৃত করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *