সৌদিতে এবার ব্যাংকের নেতৃত্বে এলেন নারী

আন্তর্জাতিক

রক্ষণশীল দেশ সৌদি আরবে পরিবর্তনের হাওয়া অনেক আগেই লেগেছে। সৌদিকে আধুনিক ঢঙে ঢেলে সাজাতে ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান বিভিন্ন সংস্কারমূলক কর্মকাণ্ডের পরিকল্পনা হাতে নিয়েছেন। এরই অংশ হিসেবে নারীদের উপর থেকে বিভ্ন্নি নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হচ্ছে। এবার প্রথমবারের মতো দেশটিতে কোন নারী ব্যাংক পরিচালনার দায়িত্ব পেলেন। দেশের একটি ব্যাংকের প্রধান হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন এক নারী।

সৌদি ব্রিটিশ ব্যাংক এবং আলাওয়াল ব্যাংক একীভূত হয়ে নতুন একটি ব্যাংক প্রতিষ্ঠা হচ্ছে। নারী ব্যবসায়ী লুবনা আল ওলাইয়ানকে নতুন ওই ব্যাংকের প্রধান হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

প্রথম কোন নারীকে ব্যাংকের প্রধান হিসেবে নিয়োগ দেয়ার ঘটনা ঐতিহ্যগতভাবে রক্ষণশীল সৌদির বিভিন্ন ক্ষেত্রে নারীদের স্বাধীনতায় আরও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সৌদি আরবের অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে নারীদের প্রবর্তক হিসেবে দেখা হচ্ছে লুবনা আল ওলাইয়ানকে। ২০১৮ সালে ফোর্বস ম্যাগাজিনের জরিপে মধ্যপ্রাচ্যের প্রভাবশালী নারীদের তালিকায় রয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র থেকে পড়াশুনা করা এই ধনকুবের নারী।

সাম্প্রতিক সময়ে ভিশন-২০৩০ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে দেশটিতে অর্থনৈতিক এবং সামাজিক সংস্কারের উদ্যোগ নিয়েছেন ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান। চলতি বছরের জুনে সৌদি বাদশাহ মোহাম্মদ বিন সালমান কর্মক্ষেত্রে নারীদের অংশগ্রহণ বাড়াতে দেশটির নারীদের ওপর দীর্ঘদিনের নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়ে তাদের গাড়ি চালানোর অনুমতি দেন।

অপরদিকে, গত সেপ্টেম্বরে নারীরা বিমান চালানোরও অনুমতি পান। সৌদি আরবের কয়েকটি এয়ারলাইন্স দেশটির মেয়েদের সহকারী পাইলট এবং কেবিন ক্রু হিসেবে নিয়োগ দিচ্ছে। ক্যারিয়ার ফ্লাইনাস নামের একটি এয়ারলাইন্স তাদের প্রতিষ্ঠানের চাকরির বিজ্ঞাপনে সৌদি মেয়েদের নিয়োগ দেওয়ার কথা জানিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *