অস্ট্রেলিয়ায় স্মিথ-ওয়ার্নার, বাংলাদেশে তামিম-মমিনুল

অন্যান্য খেলাধুলা

২০১৪ সাল থেকে অস্ট্রেলিয়ার সিংহভাগ রান এসেছে দুই তারকা ব্যাটসম্যান স্টিভ স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারের ব্যাট থেকে। বল টেম্পারিং ইস্যুর কারনে জোহান্সবার্গ টেস্টে এই দুই তারকা ব্যাটসম্যানকে ছাড়াই লড়তে হচ্ছে অস্ট্রেলিয়াকে।

পরিসংখ্যান বলছে, শুধু অস্ট্রেলিয়া দলের হয়েই নয়… সব টেস্ট খেলুড়ে দলের তুলনায় গত চার বছরে সবচেয়ে বেশি রান তুলেছেন স্মিথ-ওয়ার্নার জুটি। পুরো দলের শতকরা ৩৭ ভাগ রান এসেছে এই দুই ব্যাটসম্যানের ব্যাট থেকে।

এছাড়া জোহান্সবার্গ

টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার সেরা একাদশে সব মিলিয়ে মাত্র ২০টি টেস্ট সেঞ্চুরি আছে। অন্যদিকে স্মিথ-ওয়ার্নারের মধ্যেই টেস্ট সেঞ্চুরি ছিল ৪৪টি। স্মিথ-ওয়ার্নারদের মত দলের সিংহভাগ রান তোলায় এগিয়ে আছেন ইংল্যান্ডের জো রুট ও অ্যালিস্টার কুক।

গত চার বছরে ইংল্যান্ডের ৩২ শতাংশ রান এসেছে এই দুই ব্যাটসম্যানের ব্যাট থেকে। আজহার আলি ও ইউনুস খান ২০১৪ সাল থেকে পাকিস্তানের ৩১ শতাংশ রান করেছেন। নিউজিল্যান্ডের কেন উইলিয়ামসন ও টম ল্যাথাম এবং দক্ষিণ আফ্রিকার এলগার ও আমলা নিজ নিজ দলের ৩০ শতাংশ রান করেছেন।

ভারতের কোহলি-পুজারার ব্যাট থেকে ২৯ শতাংশ রান এসেছে। বাংলাদেশ দলের হয়ে গত চার বছরে সবচেয়ে বেশি রান এসেছে ওপেনার তামিম ইকবাল ও টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান মমিনুল হকের ব্যাট থেকে। এই দুই বাঁহাতি বাংলাদেশ দলের ২৭ শতাংশ রান করেছেন।

জিম্বাবুয়ের হয়ে ২৭ শতাংশ রান করেছেন মাসাকাদজা ও আরভিন। ব্রাথওয়েট ও ব্রাভো, দুই ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যান ওয়েস্ট ইন্ডিজের মোট রানের ২৫ শতাংশ রান করেছেন। শ্রীলঙ্কার হয়ে এই তালিকায় রয়েছেন ওপেনার করুনারাত্না ও অলরাউন্ডার অ্যাঞ্জেল ম্যাথিউস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *